হেঁটে হেঁটে মুঠোফোনে কথা বলছিলেন তরুণ, মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মৃত্যু

featured image

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্পের বেড়িবাঁধের ওপর হাঁটতে হাঁটতে মুঠোফোনে কথা বলছিলেন এক তরুণ। হঠাৎ পেছন থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান তিনি। গতকাল বুধবার রাতে উপজেলার মোহনপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত তরুণের নাম এইচ এম জহিরুল হিমেল (৩০)। তাঁর বাড়ি উপজেলার মোহাম্মদপুর এলাকায়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও স্কুলশিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম হাওলাদারের ছোট ছেলে তিনি। হিমেল ঢাকায় একটি বেসরকারি সংস্থায় চাকরি করতেন। মাসখানেক আগে তিনি বিয়ে করেন।

পুলিশ, পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গতকাল রাত আনুমানিক ১০টায় হিমেল বাড়ি থেকে বের হয়ে মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্পের বেড়িবাঁধের মোহনপুর এলাকায় যান। বাঁধের ওপর হেঁটে হেঁটে তিনি মুঠোফোনে কথা বলছিলেন। এ সময় পেছন থেকে একটি মোটরসাইকেল এসে তাঁকে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত চলে যায়। ওই মোটরসাইকেলে চালক ছাড়াও একাধিক আরোহী ছিলেন। মোটরসাইকেলের ধাক্কায় তিনি বেড়িবাঁধের ওপর পড়ে যান। তাঁর চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ও স্বজনেরা ছুটে আসেন। তাঁরা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে। জড়িত সন্দেহে রাহুল হোসেন ও মো. ইয়াসিন নামের দুই তরুণকে আটক করা হয়েছে। তাঁদের বাড়ি উপজেলার আইটাদি মাথাভাঙ্গা গ্রামে। মামলার পর আটক দুজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে।

Loading

শেয়ার করুন: